ঢাকা শনিবার, ১৯শে অক্টোবর ২০১৯, ৪ঠা কার্তিক ১৪২৬


আজ জিতলেই বাংলাদেশ ফাইনালে, হারলে বিদায় জিম্বাবুয়ের


১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৩:১৯

আপডেট:
১৯ অক্টোবর ২০১৯ ০১:৫২

ম্যাচ জিতলেই বাংলাদেশ ফাইনালে। আর জিম্বাবুয়ে হারলেই সিরিজ থেকে আউট। এমন হিসেব নিয়েই আজ সন্ধ্যা সাড়ে ছ’টায় চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হচ্ছে উভয় দল।

এই ম্যাচে নামার আগে হিসেবের অঙ্কে বাংলাদেশ বেশ এগিয়ে। তিনজাতি টি- টোয়েন্টি সিরিজের ঢাকা পর্বে বাংলাদেশ ৩ উইকেটে হারিয়েছিলো জিম্বাবুয়েকে। সিরিজে এখন পর্যন্ত দুই ম্যাচের দুটিতে জিতে একমাত্র অপরাজিত দল আফগানিস্তান। আর বাংলাদেশ দুই ম্যাচের একটিতে জয় এবং একটি হার নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে। টানা দুই ম্যাচ হেরে জিম্বাবুয়ে এখন একেবারে খাদের কিনারায়। আজ হারলেই সিরিজ থেকে ছুটি।

 শেষ ম্যাচটা তখন তাদের কেবলই আনুষ্ঠানিকতা হবে।

সিরিজে পয়েন্ট তালিকায় পিছিয়ে থাকলেও একটা বিষয়ে বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের মধ্যে বেশ মিল। উভয় দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের মুখ আঁধার! পারফরমেন্সই যে নেই। দুই দলের সিনিয়র পাঁচ ব্যাটসম্যান যেন একই সুরে গাইছেন-‘উই আর ইন সেম বোট, ব্রাদার!’

সিনিয়রদের এভাবে হঠাৎ করে নিস্প্রভ পারফরমেন্স বাংলাদেশ দলের সমস্যা ক্রমশ বাড়াচ্ছে। অনুশীলনে বাড়তি ঘাম ঝরছে। নেটে প্রশিক্ষনের সময়ও বাড়ছে। একে অন্যের সঙ্গে শলা-পরামর্শও করছেন। কিন্তু তারপরও মাঠের খেলায় সেটা অনুদিত হচ্ছে না। করতে পারছেন না।

অধিনায়ক সাকিব ঠিকই বলেছেন-‘চেষ্টার কেউ কমতি রেখেছে তা আমি বলবো না। কারণ যার যা করার উচিত ছিলো সবাই অনুশীলনে সেই চেষ্টা করেছে। তবে ম্যাচে সেই চেষ্টা এক্সিকিউট করাটা আসল কাজ। ওটাই আসল জায়গা। ওই আসল জায়গায় পারফর্ম করাই আসলে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কঠিন পরিশ্রম কারো নজরে আসবে না, যদি না মাঠে সেই খেলোয়াড় পারফর্ম করে। আমিও যদি বিশ্বকাপে ভাল পারফর্ম না করতাম তাহলে আমার কঠিন পরিশ্রম নিয়ে কথা হত না। কঠিন পরিশ্রমের বিষয়টাকে আমরা যেন জায়গা মতো প্রমাণ করতে পারি সেটাই হলো সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।’


টেস্ট সিরিজে হয়নি। টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচেও সিনিয়ররা ব্যাট হাতে পারফর্ম করতে পারেননি। আজ কি সেই ব্যর্থতা ঘুচবে? জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয়ের সঙ্গে সঙ্গে সিনিয়রদের এই সমস্যার সমাধানও চায় বাংলাদেশ।

ওপেনিং জুটিতে আজও একটা বদল আসছে বাংলাদেশ। লিটন দাসের সঙ্গে দলে নতুন ডাক পাওয়া মোহাম্মদ নাঈমকে দেখা যেতে পারে ওপেনিংয়ে। চট্টগ্রাম পর্বে দলে পেস বোলিং বিভাগে শফিউল ইসলাম ও রুবেল হোসেনকে দেখা গেলে জিম্বাবুযের বিপক্ষে আজ বুধবারের ম্যাচে তাদের একাদশে থাকার তেমন সম্ভাবনা নেই।

মঙ্গলবার দুপুরে দলের অনুশীলনে হ্যামস্ট্রিং চোটে পড়েন মোসাদ্দেক। ফিটনেসে কোনো সমস্যা না থাকলে আজ খেলছেন তিনি। মোসাদ্দেক খেলতে না পারলে বিকল্প হিসেবে দলে আছেন নাজমুল হোসেন শান্ত।

সিরিজে টিকে থাকতে জয়ের খোঁজে জিম্বাবুয়েও এই ম্যাচের একাদশে বদল নিয়েই নামার পরিকল্পনা করছে। ঢাকা পর্বে রায়ান বার্ল নামের এক অলরাউন্ডার ব্যাটে-বলে-ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশকে চমকে দিয়েছিলেন। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান বার্লকেও আজকের ম্যাচে ‘বিপদজনক’ তালিকায় রাখছে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে চট্টগ্রাম পর্বের শেষ ম্যাচে নামার আগে আজকের ম্যাচে ফাইনালে উঠার টিকিট এবং খুঁইয়ে বসা আত্মবিশ্বাস ফিরে পেতে চায় বাংলাদেশ দল।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ: মোহাম্মদ নাঈম, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন, আফিফ হোসেন, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, তাইজুল ইসলাম ও মুস্তাফিজুর রহমান।


বিষয়:


Top